24.5 C
New York
August 5, 2020
বাংলাদেশ ক্রিকেট

সাকিবের মত ক্রিকেটার এক প্রজন্মে পাওয়া কঠিন : মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ

বিপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল ক্রিকেটার বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে বিপিএলে খেলছেন না বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন রাখার কারণে এক বছরের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। যার কারণে খেলতে পারছেন না বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএলে।

সে কারণে ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দেখা না যেতে পারে সাকিব আল হাসানকে। তবে তার জায়গায় অনেকে বিকল্প হিসেবে দেখছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে। কিন্তু সেই রিয়াদ ই বললেন সাকিব একজন ই তারা বিকল্প বাংলাদেশ দলে এখন নেই।

কলকাতা টেস্টে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়ায় বঙ্গবন্ধু বিপিএলের শুরু থেকে মাহমুদউল্লাহ খেলতে পারেননি। শনিবার প্রথম মাঠে নেমে বল হাতে তার দারুণ পারফরম্যান্স, ৪ ওভারে মাত্র ১৭ রানের বিনিময়ে শিকার এক উইকেট। রংপুর রেঞ্জার্স-চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এলে সাকিবের সঙ্গে তুলনা উঠতেই আপত্তি জানালেন মাহমুদউল্লাহ,

‘সাকিবের সঙ্গে নিজের তুলনা করতে চাই না, আর সেটা ঠিকও হবে না। একজন সাকিব এক প্রজন্মে পাওয়া কঠিন। সাকিব একজনই। আমরা সবাই জানি, ওর সামর্থ্য কতটা, ক্রিকেটীয় দক্ষতা বা মস্তিষ্ক। আমি চেষ্টা করব। ওর মতো বোলিংয়ে যদি অবদান রাখতে পারি, তাহলে খুশি হব।’

জাতীয় দলে নিয়মিত বল না করার কারণ হিসেবে তিনি বললেন, ‘আমি সব সময় নিজেকে ব্যাটিং অলরাউন্ডার ভাবি, ব্যাটিংকে অগ্রাধিকার দিই। বোলিংটা আমার অ্যাডভান্টেজ। জাতীয় দলে স্পিন বোলিংয়ে অনেক অপশনও আছে অবশ্য। আফিফ আছে, মোসাদ্দেক আছে। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে তারা খুব ভালো বোলার।’

ভারত সফরে টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব ছিল তার কাঁধে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও কি থাকবে? মাহমুদউল্লাহর জবাব, ‘অধিনায়কত্ব নিয়ে আমি পুরোপুরি নিশ্চিত নই। দায়িত্ব পেলে হান্ড্রেড পার্সেন্ট দিয়ে চেষ্টা করবো। সর্বশেষ সিরিজে অধিনায়ক ছিলাম। পরের সিরিজে দায়িত্ব পেলে ভালো করার এবং যে সব জায়গায় আমাদের ঘাটতি আছে সেগুলো খুঁজে বের করার চেষ্টা করবো।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য এবারের বিপিএলকে ভীষণ গুরুত্ব দিচ্ছেন নির্বাচকরা। এ বিষয়ে মাহমুদউল্লাহর মন্তব্য, ‘ক্রিকেটারদের দায়িত্ব খেলা, আর নির্বাচকদের দায়িত্ব আমরা কেমন খেলি সেটা পর্যবেক্ষণ আর পর্যালোচনা করা। আমরা নিজেদের কাজটা মনোযোগ দিয়ে করতে চাই।’

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy