Banglawash Cricket

শ্রীলঙ্কা সিরিজের পরিবর্তে আগামী মাসেই দেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত হবে ঘরোয়া ক্রিকেট লিগ

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজ এখন নির্ভর করছে শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের সিদ্ধান্তের উপর। শ্রীলঙ্কা সিরিজ নিয়ে নিজেদের অবস্থানের কথা পরিষ্কার করলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। আজ দুপুরের বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালকদের সাথে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন যদি শ্রীলঙ্কা সরকার শর্ত শিথিল না করে তাহলে শ্রীলংকা সফরে যাবে না বাংলাদেশ।

গতকাল শনিবার শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে নতুন করে প্রস্তাব পেয়েছে বিসিবি। তাতে বেশ কিছু শর্ত জুড়ে দিয়েছে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড। শ্রীলঙ্কার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড বাংলাদেশকে যে প্রস্তাব দিয়েছে তাতে রয়েছে একাধিক নতুন ইস্যু। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, ক্রিকেটারদের ১৪ দিনের কোয়ান্টাইন বাধ্যতামূলক।

এ সময়ে হোটেলেই কাটাতে হবে ক্রিকেটারদের। এই সময়ের মধ্যে কোন প্রকার অনুশীলন করতে পারবেনা ক্রিকেটাররা। ১৪ দিনে তিনবার করোনা পরীক্ষা হবে। পাশাপাশি বাংলাদেশ দলের বহর হতে হবে ৩০ জনের এবং একবারেই ৩০ জনকে শ্রীলঙ্কায় পৌঁছতে হবে।

এই সবগুলি শর্ত মানলে শ্রীলঙ্কা সফরে যেতে পারবে বাংলাদেশ দল। কিন্তু এর একটি শর্ত মানতে রাজি নয় বিসিবি। পাপন বলেন, ‘আমরা আমাদের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে তাদের জানিয়ে দিয়েছি। তবে তারা যে শর্ত দিয়েছে, তাতে সেখানে গিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নসশিপ খেলা সম্ভব না। ওরা যে শর্তগুলো দিয়েছে তা ইতিহাসে বিরল। এই শর্ত গুলি মেনে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ খেলা সম্ভব নয়।

এখন যদি শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি দেওয়া নতুন শর্ত মেনে নেয় তাহলেই এই সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে। তবে শ্রীলঙ্কা সিরিজ বাতিল হলে বসে থাকবে না বিসিবি। খুব দ্রুতই ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরানো হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান। আর সেই জন্য খুব দ্রুতই ঘরোয়া ক্রিকেট লিগ আয়োজন করতে বোর্ড সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।