Banglawash Cricket

বিসিবির শক্ত অবস্থান দেখে সুর পাল্টালেন শ্রীলংকার ক্রীড়া মন্ত্রী। দিলেন সুখবর

শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ নিয়ে প্রায় তিনমাস ধরে চলছিল আলোচনা। প্রথমে জানা গিয়েছিল তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের এর সাথে আরও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে পারে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। কিন্তু পরবর্তীতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ বাতিল করে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড।

কিন্তু তবুও দীর্ঘদিন ধরে আসছিল না কোনো সিদ্ধান্ত। অবশেষে গত কাল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে কিছু শর্ত দিয়েছিল শ্রীলংকা সরকার। সেই শর্ত গুলি নিয়ে আজ ক্রিকেট পরিচালকদের সাথে বৈঠকে বসেছিলেন বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বৈঠক শেষে বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাফ জানিয়ে দিয়েছেন শর্ত মেনে এই মুহূর্তে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলা সম্ভব নয় বাংলাদেশের।

পাপন বলেন, ‘আমরা আমাদের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে তাদের জানিয়ে দিয়েছি। তবে তারা যে শর্ত দিয়েছে, তাতে সেখানে গিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নসশিপ খেলা সম্ভব না। ওরা যে শর্তগুলো দিয়েছে তা ইতিহাসে বিরল। এই শর্ত গুলি মেনে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ খেলা সম্ভব নয়।

বিসিবির সভাপতি এই বক্তব্যের পর নড়েচড়ে বসেছে শ্রীলঙ্কা। শর্তগুলি পুনঃবিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন শ্রীলংকার ক্রীড়া মন্ত্রী নমল রাজাপাকশে। বিসিবি সভাপতির বক্তব্যে পর টুইটারে তিনি জানিয়েছেন, “আমরা জানি কোভিড-১৯ মহামারীটি এখনও বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে বড় একটা ইস্যু। তাই প্রতিরোধ ব্যবস্থা অবশ্যই অগ্রাধিকার বেশি পাবে। তবে এই অঞ্চলে ক্রিকেট তাতপর্য বিবেচনা করে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটকে (এসএলসি) কোভিড টাস্ক ফোর্সের সাথে পরামর্শ ও বিসিবির বিষয়গুলো পুনর্বিবেচনা করতে বলেছি।’

গত শনিবার শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে নতুন যে শর্ত ছিল এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, ক্রিকেটারদের ১৪ দিনের কোয়ান্টাইন বাধ্যতামূলক। এ সময়ে হোটেলেই কাটাতে হবে ক্রিকেটারদের। এই সময়ের মধ্যে কোন প্রকার অনুশীলন করতে পারবেনা ক্রিকেটাররা। ১৪ দিনে তিনবার করোনা পরীক্ষা হবে। পাশাপাশি বাংলাদেশ দলের বহর হতে হবে ৩০ জনের এবং একবারেই ৩০ জনকে শ্রীলঙ্কায় পৌঁছতে হবে।