মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ এবং মুমিনুল হকের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়িয়েছে মাহমুদুল্লাহ একাদশ।

তামিম একাদশের দেওয়া ১০৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছে মাহমুদুল্লাহ একাদশ। শুরুতেই লিটন দাস এবং ইমরুল কায়েসকে শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফেরান অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। এরপর আরেক ব্যাটসম্যান নাঈম শেখকে ০ রানে আউট করেন মুস্তাফিজুর রহমান। তবে দুই সিনিয়র ব্যাটসম্যান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ এবং মুমিনুল হকের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়িয়েছে মাহমুদুল্লাহ একাদশ।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ১২ ওভারে ৩ উইকেটে ৩২ রান সংগ্রহ করেছে মাহমুদুল্লাহ একাদশ। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৯ এবং মুমিনুল হক ১৫ রানে অপরাজিত রয়েছেন।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারেই তামিম ইকবালকে ২ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরান ফাস্ট বোলার রুবেল হোসেন। এরপর বৃষ্টির কারণে খেলা কিছু সময় বন্ধ থাকলেও মাঠে ফিরে দুর্দান্ত শুরু করেন দুই ব্যাটসম্যান তানজিদ হাসান তামিম এবং আনামুল হক বিজয়। তবে দলীয় ৪২ রানের মাথায় জোড়া উইকেট তুলে নেন রুবেল হোসেন। ১৮ বলে ২৭ রান করে রুবেল হোসেনের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তানজিদ হাসান তামিম।

২ বল পরেই মোহাম্মদ মিথুনকে ০ রানে আউট করেন রুবেল। রুবেলের পর বোলিংয়ে এসে বিধ্বংসী রূপে বোলিং করতে থাকেন সুমন খান। রুবেল হোসেনের মতো তিনিও তুলে নেন ৩ উইকেট। শাহাদত হোসেন দিপুকে ১ রানে, আনামুল হক বিজয়কে ২৩ রানে এবং মোসাদ্দেক হোসেনকে ৫ রানে আউট করেন সুমন খান।

৬৮ রানের মধ্যে ৬ উইকেট হারিয়ে বড় ধরনের চাপে পড়ে তামিম একাদশ। এরপর মেহেদী হাসান কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তুললেও লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব দলীয় ৮৯ রানের মাথায় আউট করেন। ২৩ বলে ১৯ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। বাকিটা করেন মেহেদী হাসান মিরাজ। মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন (১২) এবং তাইজুল ইসলাম (১) উইকেট তুলে নেন তিনি।

মাহমুদুল্লাহ একাদশ : মোহাম্মদ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ নাইম শেখ, লিটন কুমার দাস, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক সৌরভ, নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), সাব্বির রহমান রুম্মন, মেহেদী হাসান মিরাজ, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, সুমন খান, রুবেল হোসেন, এবাদত হোসেন চৌধুরী।

তামিম একাদশ: তামিম ইকবাল খান (অধিনায়ক), তানজিদ হাসান তামিম, এনামুল হক বিজয় (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ মিঠুন, শাহাদাত হোসেন দিপু, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদী হাসান, তাইজুল ইসলাম, মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান ও মিনহাজুল আবেদিন আফ্রিদি।